সে ছিল

লেখক : দেবাশিস চৌধুরী

অফিস থেকে ফিরে ঘামে ভেজা জামাটা কোন রকমে ছেড়ে বিছানায় শরীরটা এলিয়ে দেয় কিংশুক। সারাটা দিনের পরিশ্রমের ধকলটা যেন তার সমস্ত শক্তি নিংড়ে নিয়ে ছিল। একদৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিল সিলিঙে বনবন করে ঘোরা পাখাটার দিকে। ঘূর্ণায়মান পাখাটার

কবিতায় নারী আঁকা পাপ

লেখক : সাখাওয়াতুল আলম চৌধুরী

কবিতায় আর প্রেম ধরা দেয় না
প্রেয়সীর তরে উপমায় আর ভাব আসে না ;
কোন উপমায় তুলে আনব
কামিনীর ডাগর দেহপল্লবীর রূপ?
যখন দেখি এখনো আর্তনাদ বঙ্গভূবনে
নিরন্ন বস্ত্রহীন কঙ্কালসার মানুষের গহীনে ।
কি করে …

ভারতের বুকে এক টুকরো বাংলাদেশ!

লেখক : মোঃ মাসুদ রানা রাশেদ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার মেঘলিগঞ্জ মহকুমা ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের রংপুর বিভাগের লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলার সীমান্তে ঘেঁষে বহুল আলোচিত এক স্থানের নাম “তিনবিঘা করিডোর”। বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী স্বতন্ত্র ভূমি যা ভারতের মালিকানাধীন। তিনবিঘা জায়গার মধ্যে …

নরকের প্রান্তরে

লেখক : সিয়াম আকন্দ

নরকের দুয়ার থেকে চাইছি তোমাকে,
ভালোবাসি ভালোবাসি আমি,
যাও পাখি বলো তারে সে জেনো ভুলে না আমারে,
আমি চেয়েছি যাকে পাইনি তাকে,
হতাশার প্রান্তরে ছুঁইয়ে দিলো আমাকে,
আমি আজ মৃত, আমি আজ নরকবাসি,
মাঝে মাঝে হবে …

কেমনে বাঁচবো

লেখক : অর্ঘ্যদীপ চক্রবর্তী

আমি তো হাতরে ফিরি এদিক ওদিক;
খুঁজি তোমায়, তোমার পরশ গায়ে মাখতে চাই।
তোমাকে তবুও পাই না।
জীবনে একবারও তোমাকে ছুঁতে পারলাম না !
কোন সে অজ্ঞাত বাধা,
কোথায় আছে সেই অদৃশ্য শক্তি,
যার কবলে আমি …

বৃষ্টিরাত

লেখক : আলী ইব্রাহিম

শেষ বিকেলে যখন রিপাদের বাড়িতে যাই তখন সে শহরদীঘিতে স্নান করে ঘরে ফিরছিল। পাখিরা ফিরছিল লালনমন্দিরে। শান্ত সন্ধ্যায় ভাঁটফুল কেঁদে ওঠে। বিষাদের শূন্যতায় উঠোনজুড়ে তখন মহুয়ার গন্ধ। প্রাগৈতিহাসিক রাত এসে দাঁড়ায় এই উপত্যকায়। বৃষ্টি যখন আসে …

৯০ দশকের বিলুপ্তি

লেখক : ইমু

৯০ দশকের দিনগুলো কতো ভালো ছিলো তাই না? হ্যাঁ ভালো ছিলো খুব ভালো ছিলো।যুগের পালাবদলে সে দিনগুলো হারিয়ে গেছে। সমাজ থেকে বিলুপ্ত হয়ে গেছে অনেক প্রথা,রীতিনীতি, সংস্কৃতি। এখন তো আধুনিক যুগ,ওসব ৯০ দশকের কথা ভাবার সময় নেই …

গতানুগতিক

লেখক : স্নেহা বিশ্বাস

মায়ের গর্ভে এলাম আমি –
তখনও আমায় নষ্ট করার করলে অনেক চেষ্টা।
তোমাদের চোখে, পুত্র সমান নাইবা হলাম দামি।
তবুও আমি হতে পারি জগৎ শ্রেষ্ঠা।
ছোটো থেকে আমার প্রতি এত অবহেলা,
সমাজ আমায় শিখিয়ে দিল খেলনাবাটি …

কোনো এক সন্ধ্যা নামার পর

লেখক : মুহাম্মদ জে.এইচ (রপ্পি)

কোনো এক সন্ধ্যা নামার পর
তোমাকে নিয়ে,
ল্যাম্পপোষ্টের আলো ধরে
হেঁটে যাবো,
সেই ফুচকা মামার দোকানে।
তুমি আপ্লুত হয়ে যাবে,ফুচকা খেতে
অধীর আগ্রহে বসবে,আমার পাশে
ফুচকা মামার দোকানে,
সেই কাঙ্ক্ষিত,ফুচকা খেতে।
মুখে থাকবে তোমার,এক চিলতে …

হারিয়ে গিয়েছো

লেখক : নয়নমণি সাহা

পড়ন্ত রোদে হেঁটেছিলে তুমি একা,
আমরা তোমার অনেক পেছনে ছিলাম,
রাত্রি পেরিয়ে পেলে সূর্যের দেখা —
একমুঠো রোদ আমরা কুড়িয়ে নিলাম।

সূর্যের আলো ঝকমক ঠিকরায়,
তোমার জীবনে হাজার সূর্য আলো,
আমরা ভিজেছি ঘনঘোর বাদলায়,
একটু আগুন …

পাখি

লেখক : নিখিল মিত্র ঠাকুর

কাকাতুয়ার মাথায় ঝুটি,
বকের মাথায় টিকি,
সামকলটার যে বড়ো টুটি,
ফিঙের লেজটা শুটি।
টিয়ার গলায় লালচে মালা,
প্যাচার মুখটা বালা,
উট পাখিটার ডানা ফালা,
তিতির কানে কালা।
চিলের পায়ে নখের থাবা,
শালিক হলো হাবা,
কাকের …

খিস্তির বিপাকে

লেখক : ড: অভীক সিংহ

“ধুর বাঁ*, এটা চা হয়েছে ? শালা আমি সকালে মুতলেও এর থেকে ভাল স্বাদ হয় ।” আমি চায়ের কাপটার দিকে তাকিয়ে মৃদুগলায় বলে উঠলাম ।
“ছি ছি ছি, কি ভাষা”, আমার পাশ থেকে সহ-অধ্যাপক ফিসফিসিয়ে

বৃষ্টি ও মৌরি

লেখক : আলী ইব্রাহিম

অনেক দিন পর আজ মৌরির রাষ্ট্রে বৃষ্টি দেখেছি
অনেক দিন পর আজ মৌরিকে মেঘ হয়ে উড়তে দেখেছি
মৌরির মধ্যে বিধ্বস্ত রাত এগিয়ে চলে।
আমি তার অন্ধকারের ভেতর হেঁটে বেড়াই
আমি তার ভেতরের নির্জনতা দেখি ভেতর থেকে।…

Back to Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন। ধন্যবাদ।

বিভিন্ন লেখকের কবিতা গল্প পাঠ শুনতে এখানে ক্লিক করুন

লেখালিখি লোগো