অ্যালকোহল বেসড্‌ হ্যান্ড স্যানিটাইজার

লেখক: সৌম্যদীপ মৈত্র এবং শামসাদ বেগম

অ্যালকোহল বেসড হ্যান্ড স্যানিটাইজার আমাদের ব্যবহৃত জিনিসের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস যেটির এন্টিমাইক্রোবিয়াল ধর্ম বর্তমান। alcohol সাধারণত প্রোটিনকে denature এবং coagulate করতে পারে সেইজন্য microorganism’s cells-গুলো বিশ্লিষ্ট হয় অ্যালকোহল দ্বারা। ৬০ থেকে ৯৫ পার্সেন্ট অ্যালকোহল যুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার গুলো সবচেয়ে বেশি কার্যকর।

এই স্যানিটাইজার হিসেবে ইথানল এর প্রথম ব্যবহার শুরু হয়েছিল ১৮৮৮ সালে। alcohol গুলোর মধ্যে ইথানল এর ৬০ তো ৮৫ পার্সেন্ট ,isopropanoler বা Isopropyl অ্যালকোহল এর ৬০ % to ৮০ % এবং n-propanol ৬০ থেকে ৮০ শতাংশ কার্যকরী antimicrobial হিসেবে। ইথানল ভাইরাস এর বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি কার্যকর এবং প্রপানলের ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস ক্ষমতা ইথানল অপেক্ষা অধিক। কিছু কিছু ভাইরাস যেমন norovirus, এবং ব্যাকটেরিয়া যেমন Clostridium difficile ও কিছু আণুবীক্ষণিক পরিজীবী যেমন cryptosporidium এগুলোকে অক্ষম করতে অ্যালকোহল সক্ষম নয় সেক্ষেত্রে সাবান জল অনেক বেশি কার্যকর।

alcohol হাতে নেবার পর এটি মূলত বাষ্পীভূত হয় এবং এর বাষ্পীভবনের জন্য প্রয়োজনীয় লীন তাপ আমাদের হাত থেকে নেয়  সেইজন্য হাতে অ্যালকোহল নিলে আমাদের হাতে ঠান্ডা লাগে।

আরেকটি খুব গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হলো alcohol খুব দাহ্য সেইজন্য আগুনের কাছে স্যানিটাইজার বোতল রাখা উচিত নয় এবং রান্না করতে করতে বা আগুনের কাছে থেকে হাতে স্যানিটাইজার ব্যবহার করা উচিত নয় কারণ সেক্ষত্রে আগুন ধরে যাবার সম্ভাবনা থাকে। যদি স্যানিটাইজার ব্যবহার করা হয় তাহলে ভালো করে হাত শুকিয়ে তারপর আগুনের কাছে যাওয়া উচিত।

118415222_917214632124760_7200742169709632785_n.jpg

তথ্যসূত্র:
১. https://www.cdc.gov/handhygiene/firesafety/index.html
২. https://www.ncbi.nlm.nih.gov/books/NBK513254/
৩. https://www.republicworld.com/…/fact-check-can-sanitizer-ca


লেখকের কথা: সৌম্যদীপ মৈত্র শামসাদ বেগম  
সৌম্যদীপ মৈত্র জঙ্গীপুর কলেজ (কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয় এর অন্তর্গত) পদার্থবিদ্যা বিভাগের  দ্বিতীয় বর্ষের  ছাত্র; বাসস্থান – মুর্শিদাবাদ জেলার অন্তর্গত জঙ্গীপুর।

শামসাদ বেগম জঙ্গীপুর কলেজ (কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয় এর অন্তর্গত) পদার্থবিদ্যা বিভাগের  দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী; বাসস্থান – মুর্শিদাবাদ জেলার অন্তর্গত  রঘুনাথগঞ্জ।

পড়াশোনার পাশাপাশি আমাদের  বিশেষ আগ্রহ  বিজ্ঞানকে আমাদের জীবনের নানান ক্ষেত্রে প্রয়োগ এবং সেই উদ্দেশ্যে  বিজ্ঞানের বিষয়গুলো নিয়ে ছোট ছোট পরীক্ষা নিরীক্ষা করা। এছাড়াও আমাদের ভালো লাগে বিভিন্ন বিজ্ঞানীদের জীবনী নিয়ে জানতে এবং  বিজ্ঞানের বিষয়গুলোকে ও ধারণাগুলোকে সাধারণ মানুষের কাছে সহজ করে তুলে ধরতে যাতে তাঁরা সেগুলোকে নিজেদের জীবনে প্রয়োগ করতে পারেন। 

শেয়ার করে বন্ধুদেরও পড়ার সুযোগ করে দিন
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।