রিপ্লেসমেন্ট ব্লাড (Replacement Blood)

লেখক : অনুপম ভট্টাচার্য

♥ Replacement Blood কি?

প্রশ্নের মধ্যেই উত্তর লুকিয়ে আছে। Replacement Blood এর অর্থ রোগী রক্ত ইতিমধ্যেই পেয়ে গেছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার বদলে ডোনার চাইছে। অর্থাৎ Replacement Blood কখনোই রোগীর জীবন বাঁচানোর জন্য জরুরি ইত্যাদি কথা কেবলমাত্র প্রচার, সত্যি নয়।


ওয়েবজিনের জন্য লেখা আহ্বান – শেষ দিন ২৫ মে

সববাংলায় লেখালিখি সাইটের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে বিশেষ ওয়েবজিনের জন্য অপ্রকাশিত লেখা ইমেল করুন। বিস্তারিত জানতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও নিয়ম মেনে লেখা পাঠান।


♥ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যে হুমকি দেয় ডোনার না দিলে রোগী কে রক্ত দেওয়া হবে না… এটা কি আদৌ সত্যি?

না, না এবং না। এটা ১০০% মিথ্যা কথা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কখনোই এই কথা তাদের প্যাডে লিখে দিতে পারবে না। কারণ তারা এটা আপনার আমার থেকে বেশি ভালো করে জানে যে Replacement Blood Donor চাওয়া সিম্পলি আর্ম টুইস্টিং।

মনে রাখতে হবে কারোর বাড়ির লোক যখন ক্যান্সার বা অ্যাপ্লাস্টিক অ্যানিমিয়ার মতো ভয়ংকর রোগের শিকার হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন, তখন বাড়ির লোকেদের অবস্থা খুবই নড়বড়ে থাকে। ফলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে লড়াই করার মতো সিচুয়েশনে তারা একেবারেই থাকেন না। আর এইটাই হচ্ছে কর্পোরেট হাসপাতাল গুলির পুঁজি। তারাও স্বচ্ছন্দে এই আর্ম টুইস্টিং চালিয়ে যেতেই থাকে।

♥ হাসপাতাল গুলি Replacement Blood Donor চায় কেন?

একটু তলিয়ে দেখা যাক গল্পের গোড়ায়। একজন স্বেচ্ছা রক্তদাতা হোল ব্লাড ডোনেশন করেন। ব্লাড ব্যাংক সাধারণত সেই হোল ব্লাড কে ভেঙ্গে PRBC বা Packed Cell, Platelets, Plasma, FFP প্রভৃতি কম্পোনেন্ট তৈরি করে থাকে, যাতে এক ইউনিট রক্ত ব্যবহার করে আরও বেশি রোগীর কাজে লাগে। কর্পোরেট হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকের ব্যবসা ও টিঁকে আছে এই কম্পোনেন্ট সেপারেশনের ওপরে ভিত্তি করেই।

হোল ব্লাড ভেঙে যে কম্পোনেন্ট গুলি পাওয়া যায়, তার মধ্যে যে কোনো একটা কম্পোনেন্ট আপনার রোগী কে হাসপাতাল থেকে দেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে আপনার ডোনারের থেকে নেওয়া হচ্ছে হোল ব্লাড। আবার সেই হোল ব্লাড ভেঙে কম্পোনেন্ট সেপারেশন এবং সেটা বেচে আবার রিপ্লেসমেন্ট। এভাবে মাছের তেলেই মাছ ভেজে মুনাফা ঘরে তোলে কর্পোরেট হাসপাতাল। রোগীর পরিবারের হাতে থাকে কেবলই পেন্সিল।

♥ রিপ্লেসমেন্ট ব্লাড এবং রিপ্লেসমেন্ট ডোনার বন্ধ করার উপায় কি?

রিপ্লেসমেন্ট ব্লাড এবং রিপ্লেসমেন্ট ডোনার বন্ধ করার ক্ষেত্রে প্রথম এবং প্রধান দায়িত্ব সরকারের। প্রয়োজন একটি সর্বজন বোধ্য ও সার্বিক জাতীয় রক্ত নীতি (National Blood Policy)। সেখানে ব্লাড ব্যাংক গুলির দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে স্পষ্ট দিশা থাকতে হবে। এবং প্রতিটি ব্লাড ব্যাংকের বাইরে স্থানীয় ভাষায় তার ডিসপ্লে করার ব্যবস্থা থাকবে।

জাতীয় রক্ত নীতি (National Blood Policy) ভঙ্গ করলে শাস্তির ব্যবস্থা রাখতে হবে। এবং কর্পোরেট লবির চাপে তার থেকে সরে আসা চলবে না।

রোগীর বাড়ির লোকেদের মনে রাখতে হবে অন্যান্য পরিসেবার মতো ডাক্তারীও একটি পরিসেবা। ডাক্তারবাবু এই পরিসেবা দিচ্ছেন এবং আপনি সেই পরিসেবার উপভোক্তা। ডাক্তারবাবুও মানুষ। অকারণ দেবত্ব অথবা দানব বানানোর অপচেষ্টা করবেন না। ডাক্তার বাবুকে তার কাজ করতে দিন। আপনিও আপনার যা জানার ডাক্তারবাবুর কাজে ব্যাঘাত না ঘটিয়ে জেনে নিন।

♥ হাসপাতালে পরিবর্ত ডোনার চাইলে কি করবেন?

মনে রাখতে হবে কর্পোরেট হাসপাতাল আপনাকে চিকিৎসা পরিসেবা দিচ্ছে এবং আপনি বিনিময়ে দিচ্ছেন তার মূল্য।  অর্থাৎ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে আপনার সম্পর্ক খুব পরিস্কার। আর যখন আপনি ক্রেতা, তখন সচেতন থাকাই আপনার উচিত। কারণ ওই বিজ্ঞাপনে লেখা দেখেননি, “সচেতন ক্রেতাই সুরক্ষিত ক্রেতা”। তাই হাসপাতাল থেকে আপনাকে রিপ্লেসমেন্ট ডোনারের কথা বললে সবিনয়ে তার কারণ জানতে চান। গ্রহণ যোগ্য ব্যাখ্যা না দিতে পারলে স্পষ্ট করে না বলুন।

আইনের ফাঁক অথবা ফাঁকির আইন : যে কোনও হাসপাতালে ব্লাড ব্যাংকের অনুমোদন দেওয়ার অন্যতম শর্ত হাসপাতালে যে রোগী ভর্তি আছেন, তাকে স্টক থাকা পর্যন্ত রক্ত দিতে হবে। যদি স্টক না থাকে, তাহলে ” রেফার টু আদার ব্লাড ব্যাংক” লিখে দিতে হবে। একান্তই যদি ব্লাড না পাওয়া যায় বা কোনও বিশেষ কারণে ডাইরেক্ট ডোনার লাগে, সেক্ষেত্রেই একমাত্র ডাইরেক্ট ডোনেশনের প্রশ্ন আসে।

কিন্তু এই “বিশেষ কারণ” টি কর্পোরেট হাসপাতালের ক্ষেত্রে বিশেষ ভাবেই অনুপস্থিত। তাদের সর্বদাই ডোনার চাই এবং রিকুইজিশন স্লিপ ইস্যু করতে তাদের ব্যাপক অনীহা। তবে ওই যে বললাম, “সচেতন ক্রেতাই সুরক্ষিত ক্রেতা”, সেটার সবচেয়ে ভালো প্রমাণ পেলাম এরমধ্যে একদিন। এই রিপ্লেসমেন্ট ব্লাডের ব্যবসার পথিকৃৎ টাটা মেডিকেল সেন্টার হলেও অ্যাপোলো গ্লেন ইগলস্ তার বিরাট প্রতিদ্বন্দ্বী। একজন রোগীর এবি নেগেটিভ রক্তের প্রয়োজন এবং তাদের হাতে ডোনার নেই। এই অবস্থায় রোগীর বাড়ির লোক যখন আমাদের সাথে যোগাযোগ করলেন, আমরা বললাম হাসপাতাল থেকে রিকুইজিশন স্লিপ নিয়ে আসতে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রাথমিক ভাবে আপত্তি জানানোর পরেও রোগীর বাড়ির লোকেরা অনড় থাকায় হাসপাতাল বাধ্য হয় রিকুইজিশন স্লিপ ইস্যু করতে।

অর্থাৎ আপনি যদি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অন্যায় দাবির সামনে অনড় থাকতে পারেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাধ্য হবে মাথা নত করতে। আফটার অল আপনাকে পরিসেবা বেচেই তাদের মুনাফা করতে হয়। তাই প্রশ্ন করুন, প্রয়োজন হলে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন।

♥ তাহলে সরাসরি ডোনার কখন দিতেই হবে?

♦♦এক এবং একমাত্র SDP Donation এর সময়ে। কারণ SDP কোনও ব্লাড ব্যাংকে পাওয়া যায়না। সরাসরি ডোনারের শরীর থেকেই প্লেটলেট সংগ্রহ করা হয় বিশেষ কিছু ক্রাইটেরিয়া ম্যাচ করলে।

♦♦এছাড়া একান্তই কোনও ব্লাড ব্যাংকে রক্ত না পাওয়া গেলে।

বাকি সময়ে?

 SAY NO TO REPLACEMENT BLOOD


লেখক পরিচিতি : অনুপম ভট্টাচার্য
এমন একজন, যে এখনো নিজের পরিচিতির খোঁজে রয়েছে। আশা করি জীবনের দৌড়ে ফিনিশিং পয়েন্ট আসার আগে তার অনুসন্ধান শেষ হবে।

শেয়ার করে বন্ধুদেরও পড়ার সুযোগ করে দিন
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন। ধন্যবাদ।

বিভিন্ন লেখকের কবিতা গল্প পাঠ শুনতে এখানে ক্লিক করুন

লেখালিখি লোগো