এ কেমন স্বাধীনতা

কবি: গার্গী

যদি প্রশ্ন করি,
স্বাধীনতার সংজ্ঞা?
উত্তরে নিশ্চই বলবে-
বিদেশি শক্তির দাসত্ব থেকে চিরমুক্তি কিংবা,
পরাধীনতার শৃঙ্খলমোচন অথবা,
স্বৈরাচারী শাসনব্যবস্থাকে পরাস্ত করে;
দেশের আকাশে নতুন সূর্যের আগমন।
মোদ্দাকথা স্বাধীনতা মানে আজ-
এসব কেতাবি ভাষার বুলি কপচানোর মিথ্যা গর্জন।
রাগ করলে? ভাবছ আমায়-
কে আমি হরিদাস পাল?
যার ঠোঁটের ডগায় এরকম অকপট ব্যাজস্তুতি!
আমি কোন হরিদাস পাল নই।
শুধু নিরপেক্ষ হয়ে একটাই প্রশ্ন করি,
এ কেমন স্বাধীনতা?
যেখানে আজও কোন মেয়েকে,
তার প্রাপ্য অধিকারের জন্য যুদ্ধ জারি রাখতে হয়;
পুরুষতান্ত্রিক সমাজের বিরুদ্ধে।
এসব ভারিক্কি সত্যবচন ভালো লাগছেনা বলো?
ভাবছ আমার নারীবাদীতা নিপাত যাক্।
আমি কোন শখের নারীবাদী নই।
আমি লিঙ্গবৈষম্যহীন এক সাধারণ মানুষ।
যে সাধারণ মানুষ আজ তোমার কথা ভেবে,
সাজানো নারীবাদের বিরুদ্ধে তোপ দেগে,
স্বাধীনতাকে দাঁড় করিয়েছে আয়নার সামনে।
আজ স্বাধীনতাই স্বাধীনতাকে প্রশ্ন করে,
তুমি কি সত্যিই স্বাধীন?
তুমি যদি সত্যিই স্বাধীন হও,
তাহলে আজও কেন তোমার হাতে-পায়;
জাতিভেদ, ধর্মান্ধতা, অন্ধবিশ্বাস, ছুত-অচ্ছুৎ, সাদা-কালোর বেড়ি বাঁধা?
প্রত্যেক দেহে বহমান লাল রক্ত,
কেউ দেখতে পায় না।
স্বাধীনতা প্রত্যুত্তরে নীরব থাকে,
যেমন তুমিও হয়েছ নীরব।
ভালো করে কোনদিন ঠান্ডা মাথায় অবসরে নিজেকে প্রশ্ন কোরো,
তবে কোন হরিদাস পাল বা নারীবাদী হয়ে নয়,
বরং নিরপেক্ষ এক সাধারণ মানুষ হয়ে-
যেখানে নিজের সামান্য চাহিদা পূরণের জন্য,
অন্যের মতামত বরদাস্ত করতে হয়।
শখ-সাধ মেটাবার, স্বাধীনভাবে কথা বলারও;
যেখানে নেই কোন ব্যক্তিস্বাধীনতা,
তোমার ইচ্ছা, স্বপ্ন এমনকি পোশাক-পরিচ্ছদ, খানা-পিনাতেও;
যেখানে জবরদখল করে বসে আছে মহাজনি সমাজ;
সেখানে আদৌ কি স্বাধীনতা সম্ভব?
অসম্ভব তোমার আমার স্বাধীনতা।
আদতে কোনদিনই আমরা না ছিলাম স্বাধীন, না আছি, না হব।
আমরা চিরকালই বন্দি,
একে অপরের হাতে সমাজবদ্ধ জীবরূপে।
বাইরে দিয়ে ধোপদুরস্ত ভদ্দর মানুষটি সেজে আমরা,
মনে মনে একে অপরের প্রতি বিষোদ্গারণ করি;
আর স্বাধীনতার বুদ্বুদের উপর বাস করি।


ছবি: কুন্তল


লেখকের কথা: গার্গী 
আমার আসল নাম সাইনি রায় হলেও আমি গার্গী ছদ্মনামেও বিভিন্ন জায়গায় লিখে থাকি। বাংলায় স্নাতকোত্তর। লেখার পাশাপাশি নাচ, গান, আঁকাতেও আমার সমান আগ্রহ। বিগত তিন বছর ধরে আমি ক্যারাটে শিখছি এবং আমি মনে করি মহিলাদের আত্মরক্ষার পাঠ গ্রহণ করা একান্ত আবশ্যক।

শেয়ার করে বন্ধুদেরও পড়ার সুযোগ করে দিন
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।