গৃহসজ্জায় খাবার ঘর সঠিকভাবে সাজানোর গুরুত্ব

লেখক : বেলি আকন (বেলি শিমু)

গৃহসজ্জার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো গৃহের ডাইনিং স্পেস।
আপনার খাবার ঘরের স্বচ্ছ আলোকিত পরিবেশ মুহূর্তেই আপনার মনে এনে দিতে পারে স্বর্গীয় অনুভূতি।
খাবার ঘরটি যদি অন্ধকার হয় কিংবা অতিরিক্ত জিনিসে সাটাসাটি অবস্থা হয় তাহলে কখনোই আপনি আপনার খাবার ঘরে খেতে বসে খাবার উপভোগ করতে পারবেন না।

চলুন জেনে নেওয়া যাক কী করে খাবার ঘরটি উপভোগ‍্য করে সাজানো যায় —

আপনার খাবার টেবিলটি সেট করুন জানালার কাছে।

আপনি যখন খেতে বসবেন, প্রকৃতির স্বচ্ছ আলো বাতাস এসে আপনাকে সিক্ত করে যাবে ঠিক তখনই পাবেন স্বর্গীয় অনুভূতি।

খাবার ঘরের জানালায় লাইট কালারের সুতির পর্দা ব‍্যবহার করতে পারেন। এতে খাবার ঘরে পর্যাপ্ত আলো বাতাস চলাচল করবে এবং ঘর অন্ধকার ও হবে না।

আপনার ডাইনিং স্পেসটি / খাবার ঘরটি যদি ছোট হয় তবে সেখানে খুব বেশি জিনিস পত্র রাখবেন না।

ডাইনিং স্পেস / খাবার ঘর নিতান্তই ছোট হলে
আকারে বেশি বড়ো টেবিল না রেখে বরং ছোট টেবিল রাখুন। তাতে আপনার খাবার ঘর বা ডাইনিং স্পেস টি আপনাকে একটি হালকা অনুভূতি এনে দেবে।

ডাইনিং স্পেস ছোট হলে ডাইনিং টেবিলে সাদা অথবা লাইট কালারের ক্লথ এবং ম‍্যাট ব‍্যবহার করতে পারেন।
অথবা সাদা এবং অন্য যেকোন একটি লাইট কালারের ক্লথ নিজেই মিলিয়ে তৈরী করে নিতে পারেন নিজের পছন্দ সই টেবিল ক্লথ / টেবিল রানার / টেবিল ম‍্যাট।

লাইট কালার ব‍্যবহারের ফলে আপনার ডাইনিং স্পেস ছোট হলেও কিছুটা চোখের শান্তি এনে দেবে।

ডাইনিং টেবিলের উপর অপ্রয়োজনীয় কিছু রাখবেন না।

একটি ট্রে রাখুন তাতে পানির জগ / বোতল, গ্লাস এবং লবণ দানি রাখুন।

একটি ছোট আকারের ফুলদানি রাখতে পারেন এবং সম্ভব হলে ফুলদানিতে কৃত্রিম ফুল না রেখে কাচাঁ ফুল রাখুন।

খাবার ঘরে / ডাইনিং স্পেসে চাইলে একটি ছিমছাম ডিজাইনের আয়না ও রাখতে পারেন।আপনার ডাইনিং রুম ছোট হলে আয়না রাখার ফলে ডাইনিং স্পেস টি বড়ো দেখাবে।

আপনার ডাইনিং স্পেস হোক আপনার মনের মতো উপভোগ‍্য।


লেখক পরিচিতি : বেলি আকন (বেলি শিমু)
বেলি আকন। ইংরেজি সাহিত্যে পড়াশুনা করেছি। এরপর ল পড়েছি। আইনজীবী হবার ইচ্ছে আছে। লেখা লিখি করতে পছন্দ করি

শেয়ার করে বন্ধুদেরও পড়ার সুযোগ করে দিন
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন। ধন্যবাদ।

বিভিন্ন লেখকের কবিতা গল্প পাঠ শুনতে এখানে ক্লিক করুন

লেখালিখি লোগো