স্বাধীনতার ওজন

কবি: গার্গী ভট্টাচার্য্য

স্বাধীনতা! স্বাধীনতা! হেইডা আবার কী?
প্যাট ভরানো গরম ভাতে হেইডা কিরে ঘি?
মাথায় এরে বসায় লাকি জমিন তলে রয়?
বুঝায় মোরে বলতো কারে স্বাধীনতা কয়?
স্বাধীন বইলে লাফাস তরা মোর কি আসে যায়?
মোর এ গতর খাইটলে তবেই ছয় ছটা প্যাট খায়।
বড়ো মানষের স্বাধীনতা! মোদের প্যাটের দায়,
হইডাতে কি অভাব মিটে? প্যাট ভরানো যায়?
লা যায় যদি স্বাধীন অধীন ফারাক কিসুই লাই,
খাইটলে তবেই উনুন চড়ে ন‌ইলে বাতাস খাই!
প্যাটে ক্ষুধার আগুন তো তাই রক্ততে লাই তাপ,
স্বাধীনতার ওজন কতো তরাই লা হয় মাপ।
লা খেইয়ে এ দ্যাহের ওজন হচ্ছে যখন কম,
স্বাধীন ভেইবে গব্বো করার কলজেতে লাই দম।
মোকে যদি খারাপ বলিস তাও লিবো না দোষ,
ক্ষুধার কাইছে অধীন মোরা তরাই স্বাধীন হোস।


ছবি: কুন্তল


লেখকের কথা: গার্গী ভট্টাচার্য্য
আমি একজন শিক্ষিকা। লেখালেখির শখ ছোটবেলা থেকেই। স্কুল ম্যাগাজিনের পাতায় প্রথম আমার লেখা ছাপার অক্ষরে দেখি। সেই আনন্দ আজ‌ও আমার স্মৃতিতে অমলিন। কবিতা লেখা ছাড়াও গান গাইতে, গান শুনতে, গল্পের ব‌ই পড়তে ও শুনতে আমার ভালো লাগে। আমার কবিতা আমার ভাবনার প্রতিফলন। তা যদি পাঠক হৃদয়কে স্পর্শ করতে পারে তবেই আমার ভাবনা সার্থকতা পাবে।

শেয়ার করে বন্ধুদেরও পড়ার সুযোগ করে দিন
  •  
  •  
  •  
  •  

2 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।