ক্ষমা

লেখক : মিথুন বিশ্বাস

ক্ষমা করো প্রভু
ঘটে যদি প্রমাদ কভু
নিদারুণ কঠিনসম,
ক্ষমা করো হে নিরুপম।

কেটেছে কত অহর্নিশ
ক্ষুদ্র তুচ্ছ কর্মে, জ্ঞাতে-অজ্ঞাতে
তোমাকে ভুলে।
আমার এ ভুল
তুমি ক্ষমিও।

কত মিছে কথা, কত মিছে হাসি
কত দীর্ঘশ্বাস,
কত মিছে বলা “ভালোবাসি”
”ভালো আছি”
আমার এ মিথ্যা বচন
ক্ষমা করো প্রভু।

জগৎ সংসার রঙ্গমঞ্চে
সেজেছি কত সঙ
লুকিয়ে আপন রঙ
করিতে অপরকে মোহিত
ভুলিয়া হিতাহিত।
প্রভু, এ ভুল তুমি ক্ষমিও।

ভেঙ্গেছি প্রতিশ্রুতি কত
প্রিয়জনকে দিয়েছি যত
অব্যক্ত করুণবেদনায়।
কেটেছে কত নিশি
নিদ্রাহীন – নিঃশব্দে – নিভৃতে
অসহনীয় যাতনায়।
আমার এ ব্যর্থতা
প্রভু, তুমি ক্ষমিও।

জীবনের পথে হেরিলেম
কত ঝঞ্ঝা অযাচিত
ক্ষত-বিক্ষত হয়েছি বারবার
সহসাঘাতে মোর লালিতস্বপ্ন
হয়েছে চুরমার
প্রবোধ দিয়েছি নিজেকে
ভবিতব্য নিশ্চয়।
কখনও দুষেছি তোমায়, ভেবেছি নিঠুর
(যখন) মর্ম হয়েছে বেদনা-বিধুর
করেছি প্রকাশ সংশয়, তব বিচারে
আমার এ সংশয় প্রভু,
ক্ষমা করে দিও।

ভেবেছিনু যাহা সর্বস্ব
তাহাই হইলো অঙ্গার ভস্ম
বুঝিতে পারিনি হায়!
জীবনের সত্য দলিয়া ফেলিয়া
বাছিয়া লইনু ছাই।।
প্রভু, এ ভুল তুমি ক্ষমিও।

তব আনন্দে করি নাই কর্ম
আঁকড়ে থেকেছি পার্থিব ধর্ম
পারমার্থিক ভাবি নাই
মোহের পিছনে ছুটেছি সদা
তোমার পানে চাহি নাই

ওগো করুণাময়,
হইয়া নিদারুণ অসহায়
নি:স্ব-রিক্ত।
তব কাছে মোর
হৃদয়ের ক্ষুদ্র আকুতি
এই যেন হয়
ওগো প্রভু – দয়াময়
তব অবারিত করুণাধারায়
সতত হই সিক্ত।


লেখক পরিচিতি : মিথুন বিশ্বাস
কবিতা লেখক। দেশমাতৃকা, নৈসর্গিক সৌন্দর্য, মানব-মানবীর চিরন্তন প্রেম -বিরহ, সমসাময়িক সমাজ ব্যবস্থা কবিতার মূল উপজীব্য। পেশায় সরকারি কলেজের একজন শিক্ষক।

শেয়ার করে বন্ধুদেরও পড়ার সুযোগ করে দিন
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।